নিউইয়র্কে খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসায় প্রস্তুত যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া যুক্তরাষ্ট্রে এলে চিকিৎসার সমস্ত খরচ বহন করবেন সেখানকার দলীয় নেতাকর্মীরা। শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির এক সমাবেশে উপস্থিত সকলে এই ঘোষণার পাশাপাশি বাংলাদেশে ক্ষমতাসীন সরকারের বিরুদ্ধে অগণতান্ত্রিক আচরণের অভিযোগও করেছেন।

খালেদা জিয়ার দ্রুত আরোগ্য কামনায় দোয়া-মাহফিলে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির নেতা ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনে কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য গিয়াস আহমেদ।
তিনি বলেন, সারাটি জীবন বাংলাদেশের গণতন্ত্র এবং মেহনতি মানুষের অতন্দ্র প্রহরীর ভূমিকায় থাকা বেগম খালেদা জিয়া আজ গুরুতরভাবে অসুস্থ। আমরা সরকারের কাছে দাবি জানাচ্ছি, অবিলম্বে তাকে স্থায়ীভাবে মুক্তি দিয়ে সুচিকিৎসার জন্যে বিদেশে আসতে দিন। খালেদা জিয়া যুক্তরাষ্ট্রে এলে আমরা তার সুচিকিৎসার ব্যবস্থা এবং সমস্ত ব্যয় বহন করব।

প্রধান অতিথি বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও জাসাসের কেন্দ্রীয় মহাসচিব চিত্রনায়ক হেলাল খানও গিয়াস আহমেদের বক্তব্যের প্রতি সমর্থন দিয়ে বলেন, মানবিকতার স্বার্থেও তার সুচিকিৎসার জন্য বিদেশে আসতে দেওয়া দরকার।

অনুষ্ঠানের সভাপতি যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা কামাল পাশা বাবুল বলেন, ‘ম্যাডাম নিউইয়র্কে চিকিৎসার জন্যে এলে আমি নিজ বাড়ি ছেড়ে দেব। পারিবারিক আমেজে তার সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করব।’

ব্রুকলীন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গির সোহরাওয়ার্দির সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন জাসাসের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোলাম ফারুক শাহীন, যুক্তরাষ্ট্র জাসাসের সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক সম্পাদক আবু তাহের, যুক্তরাষ্ট্র মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি বাবরউদ্দিন এবং সেক্রেটারি মো. সুরুজ্জামান, সুবর্ণজয়ন্তি উদযাপন কমিটির যুগ্ম সদস্য-সচিব ওমর ফারুক, আরাফাত রহমান কোকো স্মৃতি পরিষদের সভাপতি শাহাদৎ হোসেন রাজু, সন্দ্বীপ জাতীয়তাবাদী ফোরামের সভাপতি এস এম ফেরদৌস।

আরও বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির নেতা আবুল কাশেম ও আহসান উল্লাহ বাচ্চু, টেক্সাস বিএনপির সাবেক সভাপতি মো. বশীর, নোয়াখালী জাতীয়তাবাদী ফোরামের সভাপতি সালেহ আহমেদ মানিক, জাগপার সভাপতি রহমতউল্লাহ এবং স্থানীয় সিটি কাউন্সিলে ডেমক্র্যাটিক পার্টির মনোনয়নের দৌঁড়ে অবতীর্ণ মামনুনুল হক। মাওলানা আবুল কালাম পবিত্র কোরআন পাঠের মধ্য দিয়ে আলোচনা শুরু করেন। শেষে বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয় মাওলানা নূরুল হুদার নেতৃত্বে।

Leave a Comment