আজিজ মোহাম্মদ ভাই ও তার পরিবারের ব্যাংক হিসাব ফ্রিজ করেছে এনবিআর

এনবিআরের একজন কর্মকর্তা বলেন, বিক্রির তথ্য গোপন করে দুই কোটি টাকার বেশি ভ্যাট ফাঁকি দেয় এমবি ফার্মা। ফাঁকি দেওয়া ভ্যাট পরিশোধে বারবার নোটিশ দেওয়া হলেও তারা পরিশোধ করেনি। ফলে ভ্যাট আইন অনুযায়ী তাদের ব্যাংক হিসাব ফ্রিজ করতে সব বাণিজ্যিক ব্যাংকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। টিবিএসনিউজ

পরিবারসহ আজিজ মোহাম্মদ ভাইয়ের ব্যাংক হিসাব ফ্রিজ করেছে এনবিআর। তার মালিকানাধীন এমবি ফার্মাসিউটিক্যালসের দুই কোটি ৯ লাখ টাকা ভ্যাট ফাঁকি উদঘাটনের পর অ্যাকাউন্টের লেনদেন স্থগিত করা হয়।

মঙ্গলবার জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) থেকে সব ব্যাংকে চিঠি দিয়ে এটি কার্যকর করতে বলা হয়েছে। একইসঙ্গে এমবি ফার্মার সব মালিক ও তাদের পরিবারের ব্যাংক একাউন্টও ফ্রিজ রাখতে বলেছে এনবিআর।

এনবিআরের একজন কর্মকর্তা বলেন, বিক্রির তথ্য গোপন করে দুই কোটি টাকার বেশি ভ্যাট ফাঁকি দেয় এমবি ফার্মা। ফাঁকি দেওয়া ভ্যাট পরিশোধে বারবার নোটিশ দেওয়া হলেও তারা পরিশোধ করেনি। ফলে ভ্যাট আইন অনুযায়ী তাদের ব্যাংক হিসাব ফ্রিজ করতে সব বাণিজ্যিক ব্যাংকে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট ঢাকা, দক্ষিনের অতিরিক্ত কমিশনার প্রমিলা সরকার স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়, ঢাকার তেজগাঁও শিল্প এলাকায় অবস্থিত মেসার্স এমবি ফার্মাসিউটিক্যালসের কাছে মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) বাবদ ২.০৯ কোটি পাওনা রয়েছে।

প্রতিষ্ঠানটির ভ্যাট আদায়ে ঢাকা দক্ষিণের কাস্টমস, এপাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট থেকে একাধিকবার চিঠি দিলেও তারা বকেয়া পরিশোধ করেনি। এমন প্রেক্ষাপটে সরকারি রাজস্ব আদায়ের স্বার্থে সংশ্নিষ্ট প্রতিষ্ঠান ও মালিকদের অ্যাকাউন্ট ফ্রিজ বা লেনদেন স্থগিত রাখতে বলা হয়েছে।

চিঠিতে এমবি ফার্মাসিউটিক্যালস, প্রতিষ্ঠানটির মালিক আজিজ মোহাম্মদ ভাই, তার বাবা মোহাম্মদ ভাই, মা খাতিজা মোহাম্মদ ভাইয়ের নামও উল্লেখ রয়েছে।

আজিজ মোহাম্মদ ভাই বর্তমানে সপরিবারে থাইল্যান্ডে থাকেন বলে বিভিন্ন মাধ্যমে জানা যায়। মাদক চোরাচালানসহ বিভিন্ন অবৈধ ব্যবসার সঙ্গে সম্পৃক্ততার তথ্য বিভিন্ন সময়ে প্রকাশ হয়েছে।

২০১৯ সালে ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানের সময় তাঁর গুলশানের বাসায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ মদ ও ক্যাসিনো সরঞ্জাম উদ্ধার করে। তবে তাঁর পরিবারের কাউকে পাওয়া যায়নি। অভিযানের পরদিন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বাংলাদেশ ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ) থেকে ৩০ দিনের জন্য অ্যাকাউন্ট ফ্রিজের আদেশ দেয়া হয়েছিল।

এর আগে শেয়ার কেলেঙ্কারির এক মামলায় ২০১৮ সালে আজিজ মোহাম্মদ ভাইকে গ্রেপ্তারে পরোয়ানা জারি করেছিল পুঁজিবাজার বিষয়ক ট্রাইব্যুনাল। তার আগে থেকেই তিনি বিদেশে অবস্থান করছেন। তার স্ত্রী নওরীন মাঝেমধ্যে দেশে আসেন।

এমবি ফার্মার পাশাপাশি দেশের বিস্কুট খাতের শীর্ষ কোম্পানি অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজেরও মালিক আজিজ মোহাম্মদ ভাইয়ের পরিবার।

১৯৭৮ সালে প্রতিষ্ঠিত ওষুধ ও রসায়ন খাতের কোম্পানি এমবি ফার্মা ১৯৮৬ সালে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। কোম্পানির পরিশোধিত মূলধন দুই কোটি ৪০ লাখ টাকা। রিজার্ভে রয়েছে তিন কোটি ৩৮ লাখ টাকা।

Leave a Comment